কলকাতা প্রতিনিধি
কলকাতাকে লন্ডনের সমতুল্য করতে গঙ্গার পার ধরে ইকো ট্যুরিজম জোন গড়তে চান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি গত শনিবার সন্ধ্যায় হুগলি রিভার ব্রিজ কমিশন বা এইচআরবিসির সদর দফতরে গিয়ে এজন্য পরিকল্পনা তৈরির নির্দেশ দেন। কলকাতা কংক্রিটের জঙ্গলে ভরে গিয়েছে।
ভিক্টোরিয়া ও জাদুঘর ছাড়া বাচ্চাদের নিয়ে বসার মতো জায়গা কলকাতায় নেই। তাই ইকো ট্যুরিজম জোন তৈরি হলে সেই সমস্যা মিটবে বলে মুখ্যমন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন। তবে তার একটাই শর্ত, এই ইকো ট্যুরিজম জোন তৈরি করতে গিয়ে গঙ্গার পারের ঐতিহ্য কোনোভাবেই নষ্ট করা যাবে না। গড়া যাবে না কোনো কংক্রিটের কাঠামো। যা করা হবে তার সবটাই করতে হবে অস্থায়ী কাঠের কাঠামোর সাহায্যে। যাতে প্রয়োজন মতো এই কাঠামো সরিয়ে ফেলা যায়। এইচআরবিসি দফতরে বসে মুখ্যমন্ত্রী এখানকার চেয়ারম্যান কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও ভাইস চেয়ারম্যান এস আর বন্দ্যোপাধ্যায়কে বলেন, গঙ্গার পার বরাবর এইচআরবিসির প্রচুর জমি আছে। এই জমিকে সৌন্দর্যায়নের মাধ্যমে ইকো ট্যুরিজম জোন গড়ে তুলতে হবে। যাতে কলকাতার মানুষ ও পর্যটকদের কাছে কলকাতার গঙ্গার পার একটা বাড়তি আকর্ষণ হয়ে ওঠে। প্রয়োজনে কলকাতা পৌরসভা ও কলকাতা বন্দর কর্তৃপক্ষের সাহায্য নিয়ে যাতে এইচআরবিসি কাজ করে মুখ্যমন্ত্রী এদিন সেই নির্দেশও দিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কলকাতার গঙ্গার পারের অনেক অংশ সেনাবাহিনীর অধীনে রয়েছে বলে রাজ্য সরকারের সেখানে কোনো কাজ করা সমস্যার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here